দীর্ঘ ৯ বছর অপেক্ষার পর কলকাতায় দিয়েগো মারাদোনা

Diego Maradona in Calcutta
কলকাতায় দিয়েগো মারাদোনা
Diego Maradona in Calcutta
কলকাতায় দিয়েগো মারাদোনা

আজবাংলা আজ দুপুরআ১ টায় শ্রীভূমি স্পোর্টিং ক্লাবে সম্বর্ধনা দেওয়া হবে দিয়েগো মারাদোনাকে। সেখানেই ক্যানসার আক্রান্ত শিশুদের অ্যাম্বুল্যান্স প্রদান করবেন তিনি। এরপর বোড়িয়া মজুমদারের মিউজিয়ামে যাবেন তিনি। সেখান থেকে একটি অফিসের উদ্বোধন সেরে হোটেলে ফিরবেন। তারপর মঙ্গলবার কলকাতার মহারাজ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে ফুটবল খেলবেন ফুটবলের  মহারাজ মারাদোনা যাবেন মাদার হাউসেও। এর আগে তিনবার তাঁর আসা পিছিয়ে গিয়েছে। একসময় আদৌ আসবেন কি না সেটা নিয়েও প্রশ্ন ছিল। কিন্তু সব জল্পনা দূর করে রবিবার সন্ধে ৭–‌১০ মিনিটে কলকাতা বিমানবন্দর ছুঁল তাঁর বিমান। দুবাই থেকেই তাঁর সঙ্গে ছিলেন শতদ্রু দত্ত। বিমানবন্দরে তাঁকে রিসিভ করতে হাজির ছিলেন বিধায়ক সুজিত বসুও। কিন্তু সময় কাটতে থাকলেও, বাইরে আসার নাম নেই!‌ অধৈর্য বাড়ছিল উপস্থিত জনতা, অনুরাগীদের মধ্যে। যত সময় যাচ্ছিল, ভিড় বেড়েই চলছিল। শহরে আর্জেন্টিনার সমর্থক তো নেহাত কম নেই!‌ যাঁরা খবর পেয়েছিলেন, ছুটির দিনে প্রিয় তারকাকে দেখতে হাজির হয়ে গিয়েছিলেন। পরে জানা গেল, ভিসা–সমস্যার কারণেই বেরোতে কিছুটা দেরি। এই মারাদোনা যেন সেই পুরনো মারাদোনা। কে দেখে বলবে যে ক’‌দিন আগেই কাঁধে একটা বড় অস্ত্রোপচার হয়েছে!‌ আগাগোড়া যেন বিন্দাস মেজাজে। বুক ঠুকে সেই চিরপরিচিত উল্লাস, দু’‌আঙুলে ‘‌ভি’‌ দেখানো, অগুনতি উড়ন্ত চুমু পাগল করে দিল জনতাকে। বেড়ে গেল চিৎকারের পরিমাণ। ভিড়ের মধ্যেই হঠাৎ কেউ আওয়াজ দিলেন, ‘‌ওয়েলকাম টু কলকাতা দিয়েগো–ও–ও–ও’‌। একঝলক তাঁকে দেখেই উড়ে গেল চুমু। আহ্‌, স্বপ্নপূরণ!‌ কলকাতায় পা রেখেই মন জয় করার পর তাঁর গাড়ি ছুটল রাজারহাটের হোটেলের উদ্দেশে। সেখানে তাঁকে কপালে তিলক পরিয়ে এবং পুষ্পস্তবক দিয়ে অভ্যর্থনা জানালেন বিধায়ক তথা ফুটবলার দীপেন্দু বিশ্বাস।