দিলরুবার চিকিৎসা করাতে বেনারস গেলেন সর্বশান্ত বাবা

                                                                                                                       Aaj Bangla : সরকার পাশে দাঁড়ায়নি। ফিরিয়ে দিয়েছেন   বিডিও। তবে কিছুটা সাহায্য এসেছে গ্রামবাসীদের থেকে। কিন্তু, তাতে মেয়ের চিকিৎসার খরচ উঠবে না। তাই বাধ্য হয়ে নিজের শেষ সম্বল ভ্যান রিকশা ও জমি বিক্রি করে ভিন রাজ্যে পাড়ি দিলেন বাবা। উদ্দেশ্য একটাই, মেয়ে দিলরুবা খাতুনের চিকিৎসা।
নওদা অন্নদামণি গার্লস হাইস্কুলের ক্লাস নাইনের ছাত্রী দিলরুবা খাতুনের হাত জন্ম থেকে স্বাভাবিক নয়। দুই হাতের বেশ কয়েকটি আঙুল জোড়া লাগানো। ডান হাতের তর্জনি আর মধ্যমা দিয়ে কোনও রকমে পেন ধরা অভ্যেস করেছে সে।
গ্রামবাসী ও আত্মীয় পরিজনের কথাতেই মেয়ের চিকিৎসার কথা ভাবনায় আসে ভ্যান চালক আসরাফুল শেখের। তবে চিকিৎসা করানোর মত সামর্থ তাঁর নেই। স্ত্রী ও তিন ছেলে মেয়েকে নিয়ে যাঁর সংসার চালানোই দায় তাঁর কাছে। অবশেষে বেনারসের এক হাসপাতালে চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে জানান, অস্ত্রোপচার করতে হবে ও তার খরচ ৪০ হাজার টাকা। তবে টাকার অংক শুনে মাথায় হাত পড়ে আসরাফুল শেখের। সরকারি সাহায্য চেয়ে স্থানীয় নওদা ব্লকের BDO-র কাছে যান তিনি।কিন্তু তিনি ফিরিয়ে দিয়েছেন। তাই বলে থেমে থাকেনি দিলরুবার পরিবার।

Leave a Reply