২০১৭ বিদায় দিয়ে ২০১৮-নতুন বছরে কী হবে বিশ্বের, নস্ত্রাদামুসের ভবিষ্যদ্বাণী

Nostradamus
নস্ত্রাদামুস
Nostradamus
নস্ত্রাদামুস

আজবাংলা    ২০১৮ সালের ঘটতে চলা কিছু ঘটনাও আগে থেকে আন্দাজ করে রেখেছিলেন নস্ত্রাদামুস। আজ থেকে প্রায়  ৪০০ বছর আগে বেশ কিছু ভবিষ্যদ্বাণী করে গেছেন ফরাসি ভবিষ্যৎবক্তা নস্ত্রাদামুস। এর আগে বছরগুলো নিয়েও কিন্তু অনেক ঘটনার আগাম আভাস দিয়ে গেছেন এই মানুষটি। এর মধ্যে অনেক বাণীই ফলেছে অক্ষরে অক্ষরে। নস্ত্রাদামুসের ভবিষ্যদ্বাণীগুলোর মধ্যে রয়েছে হিটলার, নেপোলিয়ন এমনকি ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে বিমান হামলার কথাও। সাম্প্রতিক সময়ে মাথা তোলা ইসলামিক স্টেটের (আইএস) কথাও ৪০০ বছর আগে জানিয়ে গেছেন তিনি। এ ছাড়া তাঁর সফল ভবিষ্যদ্বাণীর ভুরি ভুরি উদাহরণ রয়েছে। যেমন লেস প্রফেইতেস’ নামে একটি বইতে ২০১৮ সালে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরুর আভাস দিয়েছেন নস্ত্রাদামুস। ফ্রান্সে শুরু হয়ে এ যুদ্ধ সমগ্র ইউরোপে ছড়িয়ে পড়বে।  ২০১৮ সাল নিয়ে খুব একটা সুখের কথা শোনাননি নস্ত্রাদামুস। তার ধারণা অনুযায়ী, বিশ্বে এমন একটা বড়সড় পরিবর্তেনর মধ্যে দিয়ে যাবে যাতে পৃথিবীর চেহারাই পাল্টে যাবে। কী এই বড়সড় ঘটনা? তার তথ্যে একাধিক বড়সড় প্রাকৃতিক বিপর্যের কথা উল্লেখ রয়েছে। শুধু তাই নয়, আগামী বছর এক বিরাট যুদ্ধের সাক্ষী থাকবে বিশ্ববাসী। যে মহাযুদ্ধ শুধু দুটি বা তার বেশি দেশের মধ্যে হবে, এমনটা নয়। হবে দুই গোলার্ধের মধ্যে। এ ধারণা বাস্তবায়িত হওয়ার যুক্তিও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কারণ বর্তমানে বিশ্বের পূর্ব ও পশ্চিমের দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্ক খুব একটা মধুর নয়। এখানেই শেষ নয়। তার সমীকরণের তালিকা বলছে, আগামী বছর মানুষের সঙ্গে মানুষের দ্বন্দ্ব আরো বাড়বে। আর লড়াইয়ের পর খুব কম সংখ্যক মানুষই শান্তির খোঁজ পাবেন। আকাশ থেকে উড়ে আসতে পারে আগুনের গোলা। যা জ্বালিয়ে পুড়িয়ে ছারখার করে দেবে নিরীহ সাধারণ মানুষকে। নস্ত্রাদামুসের এই তথ্য যেন মনে করিয়ে দিচ্ছে কিম জং উনের নিউক্লিয়ার মিসাইল নিয়ে লাগাতার পরীক্ষার ঘটনাকে। নস্ত্রাদামুস বলে গেছেন   ইতালির মাউন্ট ভিসুভিয়াস আগ্নেয়গিরিতে ভয়াবহ অগ্ন্যুৎপাত হবে। এতে নিহত হবে ছয় হাজার মানুষ। এমনটি যে হতে পারে তা ২০১৬ সালেই জানিয়েছেন ভূতাত্ত্বিকরা।  নস্ত্রাদামুসের মতে, ২০১৮ সালে ধুমকেতু বা ক্ষুদ্র কোনো গ্রহ পৃথিবীর সঙ্গে ধাক্কা খাবে। এ ছাড়া পরমাণু যুদ্ধে ছারখার হবে পৃথিবী।  ২০১৮ সালে বিশ্বের অর্থব্যবস্থার ভেঙে পড়বে। চিকিৎসা বিজ্ঞানের উন্নতির জন্য মানুষের আয়ু ২০০ বছরও হতে পারে৷  ২০১৮ সালে প্রবল ভূমিকম্পে কেঁপে উঠবে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র। এতে ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হবে। রানী ডায়নার মৃত্যু থেকে ৯/১১-র ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার ভেঙে পড়া, হিটলারের উত্থান থেকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ সব ভবিষ্যদ্বণীই বাস্তবায়িত হয়েছে।